সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০ ৪:২০ পূর্বাহ্ণ

হাটহাজারীতে কোটি কোটি টাকা মূল্যের সরকারি জমি উদ্ধার

শেয়ার করুন

হাটহাজারীতে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করে সড়ক ও জনপদ বিভাগের প্রায় ৫০ কোটি টাকার জায়গা উদ্ধার করা হয়েছে। রবিবার উপজেলার সরকারহাট বাজারে এ অভিযান চালানো হয়। সওজের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (উপসচিব) মনোয়ারা বেগম ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) রুহুল আমিনের নেতৃত্বে সকাল ১০টা থেকে বিকাল পর্যন্ত প্রায় সাত ঘন্টার অভিযানে কয়েকশত অবৈধ দোকান উচ্ছেদ করা হয়।

দীর্ঘদিন ধরে চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসকের পাশে সরকারহাট বাজারের দুপাশে কাঁচা পাকা দোকানঘর নির্মাণ করে দখল করে রেখেছিল সড়ক ও জনপদ বিভাগের চার একর জায়গা। সওজের পক্ষ থেকে তাদের বেশ কয়েকবার নোটিশ দিলেও কেউ কর্ণপাত করেনি। অবশেষে রবিবার উপজেলা প্রশাসন, সওজ, ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ বিভাগ, পল্লী বিদ্যুত ও স্থানীয় চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে দীর্ঘদিনের বেদখলীয় জায়গা উদ্ধার করা হয়।

সরেজমিনে দেখা যায়, দুটি বুলডোজার দিয়ে একের পর এক পাকা স্থাপনা ভেঁঙ্গে গুড়িয়ে দিচ্ছে। এ সময় হাজারো উৎসুক জনতা ভিড় জমায়। উচ্ছেদের শিকার দোকানদার ছাড়া সব মানুষ উচ্ছেদটিকে বাহবা জানিয়েছেন। বিশেষ করে নির্বাহী অফিসার রুহুল আমিনকে। কারণ হাটহাজারীতে এটিই সর্ববৃহৎ উচ্ছেদ অভিযান যা পূর্বে কেউই সাহস করেনি। এর দ্বারা সওজের জায়গা উদ্ধারের পাশাপাশি চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসড়কে যানজট নিরসন হবে।

ইউএনও বলেন সওজের হোক সরকারী খাস হোক এসব জায়গা দখল রাখা প্রশ্নই আসেনা, এগুলো সরকারের টাকা দিয়ে কেনা। অভিযান অব্যাহত থাকবে জানিয়ে তিনি বলেন আজকের এ অভিযান তাদের জন্য বার্তা যারা সরকারী জায়গা দখলে আছেন। সরকারী জায়গা আপোষে বুঝিয়ে দিলেই ভাল হয়।

উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী (সওজ) সৌম্য তালুকদার বলেন দীর্ঘদিনের সওজের জায়গা উদ্ধার হয়েছে। পর্যায়ক্রমে আমাদের সব জায়গা উদ্ধার করা হবে।

স্থানীয় চেয়ারম্যান নুরুল আবছার উদ্ধার অভিযানকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেন সওজের জায়গাগুলো উদ্ধার হওয়ায় সবচেয়ে বেশী উপকার হবে যানজট নিরসনের। বৃহৎ স্বার্থে আমি সরকারকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

তবে অভিজ্ঞ মহল জানান, সরকারহাটের মত হাটহাজারীর অনেক জায়গায় এভাবে সওজের সম্পদ বেদখল আছে। দ্রুত যেন সে জায়গাগুলি উদ্ধার করা হয়। না হলে প্রশাসনসহ সবাই সমালোচনার মুখে পড়বেন।


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *