সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০ ৭:০৭ পূর্বাহ্ণ

রাবি প্রেসক্লাব সভাপতি বাপ্পীর বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধ অশ্লীল আপত্তিকর মন্তব্যের অভিযোগ

শেয়ার করুন

রাবি প্রতিনিধি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাব সভাপতি মানিক রাইহান বাপ্পীর বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধকে নিয়ে অশ্লীল ও আপত্তিকর মন্তব্যের অভিযোগ উঠেছে। শনিবার মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্ম ও সন্তান সংসদ কমান্ড কর্তৃক আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের সদস্য ও দৈনিক আমার সংবাদ পত্রিকার বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি মো. উমর ফারুক লিখিতভাবে এ অভিযোগ তুলে ধরে।

উমর ফারুক জানান, সে প্রেসক্লাবের সদস্য হওয়ার পর থেকে ক্লাব সভাপতি মানিক রাইহান বাপ্পী তাকে বিভিন্নভাবে বিভিন্নসময় মানসিকভাবে হেয় করার নিমিত্তে তুচ্ছতাচ্ছিল্য করে এমনকি ক্লাবের সার্বিক কর্মকান্ড থেকে তাকে দূরে রাখত। সে আরো জানায়, বিভিন্ন সময় কোটা নিয়ে ভর্তি হয়েছে বলে তাকে অপদস্ত করা হয় এবং বিভিন্ন সময় ক্লাব সভাপতি মানিক রাইহান বাপ্পী মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে অশ্লীল এবং আপত্তিকর মন্তব্য করেন।

লিখিত বক্তব্যে ক্লাব সভাপতির বিরুদ্ধে র্যাগিং এর অভিযোগ এনে সে উল্লেখ করে ৬ ই ফেব্রুয়ারী ক্লাব সভাপতির সরাসরি নির্দেশে কয়েকজন ক্লাব সদস্য তাকে আধঘন্টা ধরে মানসিকভাবে নির্যাতন করে। অভিযোগ করে ফারুক বলেন, গত ২৪.১২.১৯ তারিখে অনুষ্ঠিত হওয়া ক্লাবের নির্বাচনের পূর্বে তৎকালীন সেক্রেটারি মানিক রাইহান বাপ্পী তাকে ভোট না দিলে তাকে ক্লাব থেকে বের করার হুমকি দিয়ে ভয়-ভীতি দেখান।

সর্বশেষ গত ১৭.০২.১৯ তারিখে ক্লাব সভাপতি সরাসরি তাকে ক্লাবে আসতে নিষেধ করেন এবং তার কাছে বহিষ্কারাদেশ পাঠিয়ে দেয়া হবে ও বলে ও জানান।

পরবর্তীতে, ১৯.০২.১৯ তারিখে বিনা কারণে তাকে শৃংখলা ভঙ্গের অভিযোগ এনে কোন রূপ আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ না দিয়ে, আনীত অভিযোগের কোন রূপ তদন্ত না করে এবং শো-কজ ছাড়াই ক্লাব থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়।

প্রেসক্লাবের কয়েকজনের ঘনিষ্ট ব্যক্তি বর্গের সূত্রধরে ফারুক জানান, প্রেসক্লাবে একটি ডানপন্থী সিন্ডিকেট থাকায় স্বভাবতই আওয়ামীমনা বা মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের যে কাউকে হুমকি দৃষ্টিতে দেখা হয়।

মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড মুক্তিযুদ্ধের অবমাননা ও ষড়যন্ত্রমূলকভাবে বহিষ্কারের বিচার এবং ক্লাব সভাপতির বিরুদ্ধে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানিয়েছে।


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *