যুক্তরাষ্ট্রে ভয়ংকর রূপ নিচ্ছে করোনাভাইরাস!

শেয়ার করুন

Read Time5 Minute, 36 Second

বাংলা প্রেস, নিউ ইয়র্ক

যুক্তরাষ্ট্রে আবারও ভয়ংকর রূপ ধারণ করেছে করোনাভাইরাস। গতকাল এখানে আরও দুই হাজার ১২৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।বিজ্ঞানীদের পূর্বাভাস জুন নাগাদ যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে মৃত্যু সংখ্যা এক লাখ স্পর্শ করবে। সেদিকেই এগিয়ে যাচ্ছে দেশটি। এ নিয়ে দেশটিতে ৭৬ হাজার ৯২৮ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৩০ হাজার। মোট আক্রান্ত হয়েছেন ১২ লাখ ৯২ হাজার ৬২৩ জন। করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়ার্ল্ডোমিটারে এ সংখ্যা নিশ্চিত করা হয়েছে। করোনাভাইরাসে মৃত্যু ও আক্রান্তে আগে থেকেই শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র। বাল্টিমোরভিত্তিক বিশ্ববিদ্যালয় জনস হপকিন্স জানিয়েছে, দেশটিতে মোট আক্রান্ত বিশ্বের মোট আক্রান্তের প্রায় এক-তৃতীয়াংশ! মার্কিন সংবাদমাধ্যম বাংলা প্রেস এ খবর জানিয়েছে।
এদিকে হোয়াইট হাউসে জাতীয় প্রার্থনা দিবস অনুষ্ঠানে কোভিড নাইন্টিনে আক্রান্ত ফ্রন্ট লাইন যোদ্ধারের পরিবারের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এরমধ্যেই ট্রাম্পের ব্যক্তিগত এক পরিচারক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন মার্কিন গণমাধ্যম।
এদিকে বিশ্বজুড়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩৯ লাখ ১৬ হাজার ৩৩৮ জনে দাঁড়িয়েছে। ২১২টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া এ ভাইরাস শুক্রবার (৮ মে) সকাল ৯টা পর্যন্ত ২ লাখ ৭০ হাজার ৭১১ জন মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৩ লাখ ৪৩ হাজার ৫৪ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন ২৩ লাখ ২ হাজার ৫৭৩ জন। এদের মধ্যে ২২ লাখ ৫৩ হাজার ৬১৫ জনের শরীরে মৃদু সংক্রমণ থাকলেও ৪৮ হাজার ৯৫৮ জনের অবস্থা গুরুতর।
মৃতের সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের পরের অবস্থানে উঠে এসেছে যুক্তরাজ্য। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩০ হাজার ৬১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৬ হাজার ৭১৫ জন। মৃত্যুর তালিকার তিন নম্বরে রয়েছে ইউরোপের দেশ ইতালি। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২৯ হাজার ৯৫৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ১৫ হাজার ৮৫৮ জন।
এর পরের অবস্থানেই রয়েছে স্পেন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২৬ হাজার ৭০ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যার দিক থেকে অবশ্য ২য় অবস্থানে রয়েছে এ দেশটি। এখানে ২ লাখ ৫৬ হাজার ৮৫৫ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।
মৃত্যুর তালিকায় এর পরের অবস্থানে রয়েছে ফ্রান্স। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২৫ হাজার ৯৮৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৭৪ হাজার ৭৯১ জন।
এদিকে জার্মানিতে ১ লাখ ৬৯ হাজার ৪৩০ জন মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজার ৩৯২ জনের। তুরস্কে ১ লাখ ৩৩ হাজার ৭২১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এখানে মৃত্যু হয়েছে সাড়ে ৩ হাজারের বেশি মানুষের। রাশিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৭৭ হাজার ১৬০ জন, মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৬২৫ জনের। কানাডায় আক্রান্তের সংখ্যা ৬৪ হাজার ৯২২ জন, মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ৪০৮ জনের।
ভাইরাসটি প্রথম শনাক্ত হয় চীনে। সেখানে এ ভাইরাসে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৮২ হাজার ৮৮৬ জন এবং মারা গেছেন ৪ হাজার ৬৩৩ জন।
এশিয়ার মধ্যে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে ইরানে। এখানে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৩ হাজার ১৩৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ৪৮৬ জনের। বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে ১২ হাজার ৪২৫ জনের শরীরে। এদের মধ্যে মারা গেছেন ১৮৬ জন এবং সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ১৫৩৩ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন ১০ হাজার ৭০৬ জন।

0 0
Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleppy
Sleppy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close