জুলাই ৩০, ২০২১ ৪:৫৪ পূর্বাহ্ণ

‘তাইওয়ানের আকাশে চীনের যুদ্ধবিমান’, হুঁশিয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের

শেয়ার করুন

তাইওয়ান অভিযোগ করেছে, টানা দ্বিতীয় দিনের মতো চীনের যুদ্ধবিমান তাদের আকাশসীমায় বড় ধরণের অনুপ্রবেশ ঘটিয়েছে। এমন ঘটনার পর চীনের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে ওয়াশিংটন।

তাইওয়ানকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়া একটি প্রদেশ হিসেবে গণ্য করে চীন। কিন্তু তাইওয়ান নিজেদের সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে মনে করে। শক্তি প্রদর্শনের এই ঘটনা এমন সময় হলো যখন জো বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে তার প্রথম কর্মদিবস শুরু করলেন।

বিশ্লেষকরা বলছেন, তাইওয়ানের প্রতি জো বাইডেনের কতটুকু সমর্থন আছে সেটিই পরীক্ষা করে দেখছে চীন।

বাইডেন ক্ষমতায় আসার পর যুক্তরাষ্ট্রের করা প্রথম মন্তব্যে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে যে, দেশটিকে নিজেদের প্রতিরক্ষায় সহায়তার বিষয়ে দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ রয়েছে তারা।

তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, শনিবার তাদের দক্ষিণ-পশ্চিম আকাশ প্রতিরক্ষা এলাকায় চীনের পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম আটটি বোমারু বিমান, চারটি ফাইটার জেট এবং একটি সাবমেরিন বিধ্বংসী বিমান প্রবেশ করে।

দেশটির মন্ত্রণালয় আরও জানিয়েছে, রবিবারের অভিযানে ১২টি ফাইটার, দুটি সাবমেরিন বিধ্বংসী বিমান এবং একটি পরিদর্শনের কাজে ব্যবহৃত বিমান ছিল।

চীনের এমন কাণ্ডে, তাইওয়ানের বিমানবাহিনী বিমানগুলোকে সতর্ক করে সরিয়ে দিয়েছে এবং সেগুলোকে পর্যবেক্ষণ করতে আকাশ প্রতিরক্ষা ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা মোতায়েন করেছে।


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *