জুন ১৯, ২০২১ ৭:৩৩ অপরাহ্ণ

মামুনুল হককে নিয়ে সেই নারীসঙ্গীর ছেলে যা বললেন

শেয়ার করুন

শুধু আমার মাকে নয়, কতো মানুষকে, কতো পরিবারকে ক্ষতি করেছে তার হিসেব নাই। আমি সবাইকে বলবো কাউকে অন্ধ বিশ্বাস করবেন না। সবারই মুখোশের আড়ালে একটা চেহারা থাকে। মামুনুল আলেম নামধারী একটা জানোয়ার। এর মাঝে কোনো মনুষ্যত্ব নেই। আমি সবার কাছে আশা করবো তার যেন সঠিক বিচার হয়। হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে নিয়ে এভাবেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন মামুনুলের কথিত দ্বিতীয় স্ত্রীর ছেলে আব্দুর রহমান।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে আব্দুর রহমানের তিন মিনিট দুই সেকেন্ডের একটি বক্তব্য ভাইরাল হয়েছে। আব্দুর রহমান বলেন, ‘আমি বড় হয়েছি, পরিবেশ বুঝি কিন্তু আমার ছোট ভাই শামীম মাত্র ১২/১৩ বছরের। সে তেমন কিছু বুঝে না। লোকে অনেক কথা বলতেছে। সমাজে মুখ দেখাতে পারছে না। কাল দেখলাম সে সারারাত ঘুমায়নি। সে মানসিক ভাবে শকড।

আব্দুর রহমানের মতে, ‘এটা আমি বলবো আমার বাবার কর্মের ফল। আমার বাবা মানুষকে অন্ধের মতো বিশ্বাস করতো। পাগলের মতো ভালোবাসতো। কিছু দিন আগে মোল্লারহাটে একটা মাহফিল ছিলো যেটা পুলিশ করতে দেয়নি। সে একটা জায়গায় লুকায়া ছিল। আমার বাবা সেটা দেখে আইসা কীভাবে যে কানছে। তার আগেই বিষয়টা আমি জানছি যে, আমার মায়ের সঙ্গে তার একটা সম্পর্ক ছিল। আমি তখন হাসতে ছিলাম যে, এই লোকটা যার জন্য অঝোর ধারায় কানতেছে আর ওই লোকটা (মাওলানা মামুনুল হক) এই লোকটার (বাবা শহীদুল ইসলাম) সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করতেছে। তারপরে যখন ওনাকে জেলে নিলো, মাওলানা মামুনুল হককে জেলে নিলো, তখন আমার বাবা থানার ওসি কামরুজ্জামানকে বলে যে, আমাকে রেখে ওনাকে ছেড়ে দেন। কতটা ভালোবাসলে একটা মানুষকে এই কথা বলতে পারে। আর সেই লোকটা কীভাবে গাদ্দারি করলো।’


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *