জুন ২১, ২০২১ ৩:৩৭ অপরাহ্ণ

অবিবাহিত, তালাকপ্রাপ্ত বা বিধবা নারীরা তাদের পুরুষ অভিভাবকের অনুমতি ছাড়াই একা ঘুরতে পারবেন এমনকি পৃথক বাড়িতে একা বসবাস করতে পারবেন

শেয়ার করুন

অভিভাবকের অনুমতি ছাড়া কোনো সৌদি নারী বাইরে বের হতে পারেন না কিংবা একা বাস করতে পারেন না। কিন্তু এবার সেই আইন আর থাকলো না।

এখন থেকে অবিবাহিত, তালাকপ্রাপ্ত বা বিধবা নারীরা তাদের পুরুষ অভিভাবকের অনুমতি ছাড়াই একা ঘুরতে পারবেন এমনকি পৃথক বাড়িতে একা বসবাস করতে পারবেন।

দ্য মক্কা সংবাদপত্রের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে গালফ নিউজ।

একটি মামলার পরিপ্রেক্ষিতে আদালতের এই রায়কে ঐতিহাসিক বলে বিবেচনা করা হচ্ছে। বলা হচ্ছে, এই রায়ের ফলে সৈদিতে নারী স্বাধীনতার বিষয়টি আরেক ধাপ এগিয়ে গেল।

২০২০ সালের জুলাই মাসে সৌদি লেখিকা মারিয়াম আল-ওতাইবি তার বাবার অনুমতি ছাড়া একা ঘুরতে যেতে চাইলে তা আদালতে গড়ালে সেই মামলায় তার পক্ষে রায় দেওয়া হয়। নতুন এই নিয়ম প্রসঙ্গে সৌদি আইনজীবী নায়েফ আল-মানসি জানান, যদি কারও মেয়ে একা থাকতে চায়, সেক্ষেত্রে তার পরিবার এখন থেকে আর মামলা করতে পারবে না। অবিবাহিত, তালাকপ্রাপ্ত বা বিধবা নারীরা এই সুযোগ পাবে।

সংশোধনী এই আইনে আরও বলা হয়, একজন প্রাপ্তবয়স্ক নারী কোথায় থাকবেন সেটা নির্ধারণ করার অধিকার তার রয়েছে। যদি কোনো নারী কোনো অপরাধ করে কেবল তখনই তার অভিভাবক এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষকে অবহিত করতে পারবে। এমনকি যদি কোনও নারীর কারাদণ্ড হয়, তবে সাজার মেয়াদ শেষে তাকে তার অভিভাবকের কাছে ন্যস্ত করার কোনো বিধান থাকছে না।


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *