জুলাই ২৮, ২০২১ ৪:০৬ পূর্বাহ্ণ

বাগমারায় মসজিদের জমি দখলকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসী হামলা, আহত ১০

শেয়ার করুন

বাগমারা প্রতিনিধিঃ

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলায় মসজিদের জমি দখলকে কেন্দ্র করে হত্যার উদ্দেশ্যে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।বুধবার ৩০ জুন বিকাল ৬ টায় বাগমারা উপজেলার আউচপাড়া ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ৩০ জুন বিকালে খালগ্রাম বাজারে যায় বিষ্ণুপুর উত্তরপাড়ার লোকজন। বাজার থেকে ফিরে আসার পথে দক্ষিনপাড়ার মৃত নুর মোহাম্মদের ছেলে আবু শামা ও তার ছেলেরাসহ আনুমানিক ২৮-৩০ জন পূর্বপরিকল্পিতভাবে উত্তরপাড়ার লোকজনের উপর হামলা করেন। হামলাকারিরা তাদের হাতে থাকা দেশিও অস্ত্র, হাসুয়া, লাঠিসোঠা দিয়ে এলোপাতাড়ি আঘাত করতে থাকে, এতে ঘটনা স্থলে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে যায় বিষ্ণুপুর ( উত্তরপাড়া) গ্রামের রাজা মিয়া (৫০), মোজাফফর, আজিজুর (৩৬) ও ফজলু (৩৮)। খবর পেয়ে গ্রামের লোকজন ঘটনাস্থলে ছুটে গেলে আবার উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয় এতে উভয়পক্ষের আরও কয়েকজন সামন্য আহত হয়। ঘটনাস্থল থেকে গুরুতরদের উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে প্রত্যক্ষদর্শী জানায়, আহতদের অবস্থা গুরুতর ও আশংকাজনক। ঘটনাসূত্রে জানাযায়, মসজিদের জমি দখলকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন থেকে দুই গ্রামের মধ্যে মামলা চলমান ছিল। মামলাসূত্রে জানাযায়, ১৯২০ সালে বিষ্ণুপুর গ্রামের মুসলমানদের ব্যাবহারের জন্য প্রায় সাড়ে তিন একর জমি দেয় তৎকালিন হিন্দু সম্প্রদায়। এরপর থেকে বিষ্ণুপুর গ্রাম সেই জমি ভোগদখল করে আসছে। পরবর্তিতে গ্রামটি দুইভাগে বিভক্ত হলে দক্ষিনপাড়ার লোকজন তাদের জমি বলে দাবী করে। খোঁজ নিয়ে জানাযায় কৌশলে আরএস রেকর্ডে দক্ষিন পাড়ার নামে রেকর্ড করে নেয়। যেখানে সিএস ও এসএ রেকর্ডে বিষ্ণুপুর গ্রামের মুসলমানদের ব্যবহারের কথা উল্লেখ আছে। তাহলে আরএস এ দক্ষিনপাড়া উল্লেখ কিভাবে হলো? বিষয়টি জানাজানি হলে বিষ্ণুপুর গ্রাম ( উত্তরপাড়া) রেকর্ড সংশোধনি মামলা করে। যা চলমান রয়েছে, আবার পরবর্তিতে সেই জমিতে থাকা পুকুরটিতে মাছ মারাকে কেন্দ্র করে প্রায় আট মাস আগে দক্ষিনপাড়ার লোকজনদের দ্বারা হামলার শিকার হয় উত্তরপাড়ার লোকজন। এ ঘটনাতেও ১৪৫ ধারায় মামলা করে বিষ্ণুপুর ( উত্তরপাড়া) সাধারণ মানুষ। যেন সমাধান না হওয়া পর্যন্ত উক্ত জমিতে কেউ না যায়। এই মামলাও চলমান রয়েছে। কিন্তু পরবর্তিতে সকল কিছুকে উপেক্ষা করে বিষ্ণুপুর দক্ষিনপাড়ার লোকজন ১৬ জুন ২০২১ তারিখে চুরি, ছিনতায়, ডাকাতির মামলা করে। এই মামলা করার পর ৩০ জুন পাল্টা হামলা করে বসে দক্ষিনপাড়ার লোকজন। যা খুবই দুঃখজনক। এখন হামলার শিকার হওয়া ব্যক্তিরা মৃত্যুযুদ্ধে লড়াই করছে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। এবিষয়ে বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ মুস্তাক আহমেদের সাথে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এমন ঘটনা ঘটেছে। উভয় পক্ষই থানায় এসেছে মামলার উদ্দেশ্যে। উভয় পক্ষের ঘটনার বিবরণ শুনে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *