জুলাই ২৮, ২০২১ ৪:৪১ পূর্বাহ্ণ

কোভিশিল্ডকে করোনার বিরুদ্ধে কার্যকর ভ্যাকসিন হিসেবে স্বীকৃতি দিলো নেদারল্যান্ডস

শেয়ার করুন

ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট কর্তৃক প্রস্তুতকৃত কোভিশিল্ড ভ্যাকসিনকে করোনার বিরুদ্ধে কার্যকর হিসেবে স্বীকৃতি দিলো নেদারল্যান্ডস। শুক্রবার, ০২ জুলাই, ইউরোপীয় ইউনিয়নের অষ্টম দেশ হিসেবে কোভিশিল্ডকে অনুমোদন দিলো তাঁরা।

উল্লেখ্য, ইতোমধ্যে নেদারল্যান্ডস কর্তৃক অনুমোদিত অন্যান্য ভ্যাকসিনগুলির মধ্যে রয়েছে ফাইজার, অ্যাস্ট্রাজেনেকা-ইইউ, জনসন এবং জনসন, মডার্না, অ্যাস্ট্রাজেনেকা-এসকে বিও (ভ্যাক্সেভ্রিয়াভি সিনোচারভিয়া) ।

এর আগে গত বুধবার ইউরোপের উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারি বার্তা উচ্চারণ করেছিলো ভারত। সেখানে বলা হয়েছিলো, ইউরোপ যদি ভারতীয় ভ্যাকসিন গুলোকে মান্যতা না দেয়, তাহলে ভারতও পাল্টা ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

এর আগে, ভারতে প্রস্তুতকৃত ভ্যাকসিন গুলো স্বীকৃতি না দেয়ায়, এগুলো গ্রহণকারী ব্যক্তিদের ইউরোপে প্রবেশে বাঁধা প্রদান করছিলো সেসব দেশের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। এ অচলাবস্থা কাঁটাতে দীর্ঘদিন যাবত সমাধানের দাবি জানিয়ে আসছিলো ভারত। কিন্তু কার্যত কোনো ফল না পাওয়ায় সবশেষ রীতিমতো হুঙ্কার ছুড়ে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ।

ভারতের পক্ষে বলা হয়, কো-ভ্যাকসিন ও কোভিশিল্ডকে যদি ইউরোপীয় ইউনিয়ন স্বীকৃতি না দেয়, তা হলে ইউরোপীয় ইউনিয়নের কোনো দেশের নাগরিক ভারতে এলে তাঁদের বিধিবদ্ধভাবে কঠিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে বাধ্য করা হবে।

এরপরই সুর পালটে যায় ইউরোপীয় দেশগুলোর। তারই ফলস্বরূপ গত বৃহস্পতিবার ইউরোপীয় ইউনিয়নভূক্ত সাতটি দেশ সহ নয়টি দেশ এবং আজ অষ্টম ইইউ ভূক্ত দেশ হিসেবে নেদারল্যান্ডস ভারতীয় ভ্যাকসিনকে অনুমোদন দেয়।

গতকাল ভারতীয় ভ্যাকসিন গুলোর অনুমোদন দেয়া ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত সাতটি সদস্য দেশ যথাক্রমে, জার্মানি, স্লোভেনিয়া, অস্ট্রিয়া, গ্রিস, আয়ারল্যান্ড, এস্টোনিয়া আর স্পেন। এ ছাড়া ইউরোপীয় ইউনিয়নের বাইরের যে দু’টি দেশের ছাড়পত্রও পাওয়া গিয়েছে, সেগুলো হলো, আইসল্যান্ড এবং সুইজারল্যান্ড। এখন থেকে এসব দেশে কোভিশিল্ড গ্রহণকারী ব্যক্তিদের গমণে আর কোনো বাঁধা রইলো না।


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *